বাংলাদেশ থেকে কুয়েত বিমান ভাড়া কত

কুয়েত বিমান ভাড়া কত
কুয়েত বিমান ভাড়া কত

আজকে আমরা আপনাদের সঙ্গে কুয়েত বিমান ভাড়া কত সে সম্পর্কে আলোচনা করব। আপনারা যারা বাংলাদেশ থেকে কুয়েতে যেতে আগ্রহে মূলত তারা এই সম্পর্কে জানতে বেশি আগ্রহ প্রকাশ করে থাকেন। পুরো কনটেন্ট জুড়ে আপনারা আমাদের সঙ্গে থাকলে কুয়েত বিমান ভাড়া সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে পারবেন। চলুন জেনে আসি কুয়েত বিমান ভাড়া সম্পর্কে কিছু তথ্য।

কুয়েত বিমান ভাড়া কত

কুয়েত বিমান ভাড়া প্রায় ৫০ থেকে ৮০ হাজার প্লাস হয়ে থাকে। আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে সরাসরি কুয়েত যেতে চান তাহলে আপনার বিমান ভাড়া লাগবে ৯৫ হাজার টাকা। আর আপনি যদি ট্রান্সলেট এর মাধ্যমে যেতে চান বা যে সকল বিমান অন্যস্থানের ট্রানজিট করে তারপরে আবার যাই এমন বিমানে যেতে চাইলে আপনার খরচ হবে প্রায় একই রকম। আপনি সরাসরি গেলে আপনি পাঁচ ঘন্টার মধ্যেই পৌঁছে দিতে পারবেন। আর যে সকল এয়ারলাইন্স ট্রানজিট করে থাকে বা অন্য স্থানে থামে তাদের সময় লাগে প্রায় ৮/১০ ঘন্টা  প্লাস। ঢাকা থেকে কুয়েত সর্বনিম্ন ভাড়া ৮৪ হাজার টাকা।

ঢাকা টু কুয়েত বিমান ভাড়া কত

ঢাকা টু কুয়েত যেতে বিমান লেগে থাকে প্রায় সর্বনিম্ন বিমান ভাড়া ৪৯ হাজার থেকে শুরু করে এক লক্ষ প্লাস টাকা লেগে থাকে। এক একটা এয়ারলাইন্সে একেক রকম বিমান ভাড়া হয়ে থাকে। আপনি যদি বাহারাইন ট্রানজিট দিয়ে কুয়েত যেতে চান তাহলে আপনার খরচ হবে ৫৮ হাজার টাকার মত।

আরো পড়ুনঃ  মাল্টায় কোন কাজের চাহিদা বেশি ২০২৩

এমনভাবে ট্রানজিট ভিন্ন ভিন্ন হওয়ার কারণে বিমান ভাড়া ও ভিন্ন রকম হয়ে থাকে। আপনি যত উন্নত বিমানে যাবেন ততো যেতে কম সময় লাগবে। আপনি যদি সরাসরি কুয়েত যেতে চান তাহলে আপনি কুয়েত এয়ারলাইন্স এ যেতে পারেন। এখান থেকে কুয়েতে যেতে আপনার সময় লাগবে প্রায় ৫ ঘন্টার মত। আর এখানের বিমান টিকিটের মূল্য ৮০ হাজার প্লাস।

বাংলাদেশ টু কুয়েত বিমান ভাড়া ২০২৩

আপনারা যারা বাংলাদেশ থেকে কুয়েতে যেতে চান তারা মূলত জানতে আগ্রহী হয়ে থাকেন বাংলাদেশ টু কুয়েত এর বিমান ভাড়া সম্পর্কে। নিচের টেবিলে আপনারা বাংলাদেশ টু কুয়েতের বিমান ভাড়া সম্পর্কে জানতে পারবেন। চলুন দেখে নেই বাংলাদেশ টু কুয়েত বিমান ভাড়া কত।

এয়ারলাইন্সবিমান ভাড়া
Flydubai৬০,২৩৪ টাকা
Gulf Air৫৭,৫৯৬ টাকা
Turkish Airlines১,১৮,৬৪৫ টাকা
Kuwait Airways৬৯,১৯৬ টাকা
Air Arabia৭৬,৫৬০ টাকা

বিভিন্ন সময় টিকিটের মূল্য পরিবর্তন হয়ে থাকে। তাই টিকিট ক্রয় করার পূর্বে আপনারা জেনে নিবেন কোন সময় টিকিট কাটা বা টিকিট ক্রয় করা ভালো সে সম্পর্কে। এখন আপনারা ঘরে বসেই সবকিছু এবং সকল তথ্য খুব সহজেই জানতে পারবেন। বর্তমান সময়ে অনলাইন এর মাধ্যমে আপনারা আপডেট ভাড়া সম্পর্কে জানতে পারবেন। তাই টিকিট কাটার পূর্বে আপনারা জেনে নিবেন বাংলাদেশ টু কুয়েত বিমান ভাড়া কত।

কুয়েত বিমান ভাড়া কত

কুয়েত এয়ারলাইন্সের টিকিটের দাম কত

কুয়েত এয়ারলাইন্স টিকিটের দাম হল ৪৫ হাজার টাকা থেকে শুরু করে প্রায় এক লাখ টাকার কাছাকাছি। কিছু কিছু এয়ারলাইন্স থেকে ৩৯ হাজার টাকা দিয়ে ও যাওয়া যায়। কুয়েত যাওয়া এটা সর্বনিম্ন টিকিট মূল্য। বাংলাদেশ থেকে সরাসরি কুয়েত জামার ক্ষেত্রে আপনি যদি খুব দ্রুত সময় যেতে চান তাহলে আপনি ৫ ঘণ্টার মধ্যে পৌঁছাতে পারবেন। সেক্ষেত্রে আপনার খরচ হবে প্রায় ৮০ হাজার টাকা। আমরা এখানে যে মূল্যটি বললাম মূলত এর আশে পাশেই এয়ার টিকিটের মূল্য হয়ে থাকে। বিমান টিকিটের দাম এর তারতম্য থাকলে ও খুব বেশি কম বেশি হয় না।

ঢাকা টু কুয়েত ফ্লাইট কবে চালু হবে

ঢাকা টু কুয়েত ফ্লাইট বর্তমান সময়ের চালু রয়েছে। করোনা কালীন সময়ে এই ফ্লাইট বন্ধ ছিল। তবে বর্তমান সময়ে এগুলো খুলে দেওয়া হয়েছে। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে আপনি বাংলাদেশ থেকে কুয়েতে যেতে পারবেন। যেহেতু এই সময় ফ্লাইট চালু রয়েছে সেহেতু আপনারা খুব সহজেই কুয়েতে যেতে পারবেন।

বাংলাদেশ থেকে কুয়েত যেতে কত টাকা লাগে

বাংলাদেশ থেকে কুয়েত যেতে খরচ হয় প্রায় ৪০ হাজার থেকে শুরু করে ৮০ হাজার প্লাস টাকা। আপনি যদি সর্বনিম্ন ফ্লাইট থেকে যেতে চান তাহলে আপনার খরচ হবে প্রায় ৪০,০০০ টাকার মতো। আর আপনি যদি উন্নত ফ্লাইটে যেতে চান এবং সরাসরি বাংলাদেশ থেকে কুয়েত তাহলে আপনার খরচ হয় প্রায় ৮০ হাজার টাকা।

আরো পড়ুনঃ  দুবাই কোম্পানি ভিসা | দুবাই কর্মী নিয়োগ ২০২৩

বিভিন্ন সময়ে টিকিটের মূল্য পরিবর্তন হয়ে থাকে। যাবার পূর্বে আপনারা অবশ্যই অনলাইনের মাধ্যমে টিকিটের মূল্য সম্পর্কে জেনে নিবেন। তাহলে আপনাদের অনেক সুবিধা হবে। আর এখন অনলাইনে সকল তথ্য পাওয়া যায়। সুতরাং আপনি খুব সহজে অনলাইন থেকে বাংলাদেশ থেকে কুয়েত যেতে কত টাকা লাগে সে সম্পর্কে জানতে পারবেন।

বাংলাদেশ থেকে কুয়েত যেতে কত সময় লাগে

বাংলাদেশ থেকে কুয়েত যেতে সময় লাগে পাঁচ ঘন্টা থেকে আট ঘন্টা। দুইটা সময় উল্লেখ করার কারণ হলো যদি আপনি সরাসরি বাংলাদেশ থেকে কুয়েত যান তাহলে আপনার সময় লাগবে ৫ ঘন্টা। আপনি যদি দেশ পরিবর্তন করেন বা ফ্লাইট চেঞ্জ করেন তাহলে আপনার সময় লাগবে আট ঘন্টা বা তার বেশি। আপনারা চাইলে গুগল ম্যাপের সাহায্য নিতে পারেন তাহলে আপনারা সেখান থেকে দেখে নিতে পারবেন বাংলাদেশ থেকে কুয়েত যেতে কতটুকু সময় লাগে। সেখানে আপনি হাঁটা সড়ক পথ অথবা বিমান পথ সবরকম ভাবেই দেখে নিতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ  মালয়েশিয়া যেতে কত বয়স লাগে ২০২৩

বাংলাদেশ থেকে কুয়েত কত কিলোমিটার

বাংলাদেশ থেকে কুয়েতের দূরত্ব হলো ৪২৮৬ কিলোমিটার। যা আমরা গুগল ম্যাপ থেকে পেয়ে থাকি। এ বিশাল দূরত্ব অতিক্রম করে আমরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কাজের জন্য কুয়েত যেয়ে থাকি। ৪২৮৬ কিলো মিটার যেতে সময় লাগে বিমান থেকে প্রায় পাঁচ ঘন্টার মত।

কুয়েত বিমান টিকেট চেক করার নিয়ম

আপনি এখন ঘরে বসেই কুয়েতের বিমান টিকেট চেক করতে পারবেন। কুয়েতের বিমান টিকিট সম্পর্কে বা টিকিট চেক করা সম্পর্কে আপনারা অনেকেই জানতে চান। চলুন জেনে নেই কুয়েত বিমান টিকেট চেক করার নিয়ম সম্পর্কে।

  • টিকিট চেক করতে হলে আপনাকে প্রথমে একটি ব্রাউজার ওপেন করতে হবে এবং সেখানে গিয়ে আপনারা তাদের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করবেন।
  • তারপর মেনু বারে থেকে আপনারা ম্যানেজ বুকিং বাটনে ক্লিক করবেন।
  • তাহলে আপনার লাস্ট নেম এবং ফার্স্ট নেম দিতে বলবে তারপর বুকিং রেফারেন্স অথবা ই টিকিট নাম্বার দেওয়ার জন্য একটি অপশন আসবে।
  • আপনার টিকিটের থাকা রেফারেন্স বা টিকিট নাম্বার যেটা রয়েছে সেটা সেই স্থানে বসিয়ে দিবেন।
  • তারপরে আপনারা সেটা সাবমিট করবেন।
আরো পড়ুনঃ  কুয়েত ভিসা বন্ধ না খোলা-কুয়েত ভিসা নিউজ

কিছু সময় ওয়েট করার পরে আপনারা দেখতে পারবেন টিকিটের সকল তথ্য। যদি কোন কারণে আপনার টিকিটের কোন তথ্য না আসে তাহলে আপনি যে স্থান বা যার মাধ্যম দিয়ে টিকিট সংগ্রহ করেছেন তার সঙ্গে যোগাযোগ করবেন।

কুয়েত বিমান ভাড়া নিয়ে সতর্কতা

যেকোনো কাজের ক্ষেত্রে বা যে কোনো ক্ষেত্রেই আমাদের সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। যেন পরবর্তীতে কোন সমস্যা সম্মুখীন হতে না হয় সেই কারণে। আপনি যদি আপনার ভিসা চেক না করেন অথবা বিমান টিকেট চেক না করেন তাহলে আপনি বুঝবেন না আপনার এগুলো সঠিক আছে কিনা সে সম্পর্কে।

যে কারণে আপনাদের সতর্ক হওয়া উচিত সর্ব ক্ষেত্রেই। কুয়েত বিমান ভাড়া যেহেতু সবসময় একইরকম থাকে না বা সব ফ্লাইটে একই রকম হয় না সুতরাং আপনাকে সবসময় আপডেট তথ্য জানতে হবে। আপনি অনলাইনে সাহায্য নিলে আপনি সকল তথ্য খুব সহজেই জেনে নিতে পারবেন। আপনি যদি কোন দালালের মাধ্যমে কুয়েতে যেতে চান তাহলে দালাল আপনার থেকে বিমান ভাড়া বেশি নিতে পারে। তাই যাবার পূর্বে আপনার জানা উচিত কুয়েতে বিমান ভাড়া কত এবং সে সম্পর্কে সতর্ক থাকা উচিত।

Comments

No comments yet. Why don’t you start the discussion?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *