বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে ফেরত পেতে করণীয়

বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে ফেরত পেতে করণীয়
বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে ফেরত পেতে করণীয়

আজকে আমরা কথা বলবো বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে ফেরত পেতে করণীয় কি এই বিষয়টি নিয়ে। বিকাশের মাধ্যমে যখন এক নাম্বার থেকে অন্য নাম্বারে আমরা কোন ধরনের ট্রানজেকশন করে থাকি তখন ভুল নাম্বারে চলে যেতে পারে। কিন্তু এক্ষেত্রে আমরা ভুল নাম্বার থেকে কিভাবে টাকা ফেরত পাব তা অনেকেই জানিনা। তাই আজকে আমরা এ কনটেন্ট এর মধ্যে সম্পূর্ণভাবে এই বিষয়টি তুলে ধরবো কিভাবে আপনারা বিকাশে ভুল নাম্বার থেকে টাকা ফেরত পাবেন।

বর্তমান সময়ে মোবাইল ব্যাংকিং অনেক জনপ্রিয় লাভ করেছে কেননা খুব সহজেই এক নাম্বার থেকে আর এক নাম্বারে যেকোনো মুহূর্তে টাকা পাঠানো যায়। তাই এই সহজ মাধ্যম ব্যবহার করতে গিয়ে অনেকেই ভুল নাম্বারে টাকা পাঠিয়ে দিয়ে থাকে বিকাশের মাধ্যমে। এই ক্ষেত্রে অনেকেই বিভিন্ন ধরনের সমস্যার মধ্যে পড়েছেন তাই আজকে আমরা এই সমস্যাটি কিভাবে সমাধান করবেন তাই তুলে ধরেছি।

বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে কিন্তু আপনি ফিরে পাওয়া অনেকটাই কষ্ট করে একটি ব্যাপার তারপরও আপনারা চেষ্টা করলে খুব সহজে বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেছে সেটা উদ্ধার করতে পারবেন। আর সেটা উদ্ধার করার জন্য আপনার প্রয়োজনীয় কিছু ডকুমেন্ট সঙ্গে রাখতে হবে এবং আপনি যেই নাম্বারে টাকা পাঠিয়েছেন সেই নাম্বার আপনার কাছে থাকতে হবে তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক পর্যায়ক্রমে কি কি করা যায়।

বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে ফেরত পেতে করণীয়

বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে ওই ব্যক্তি যদি আপনাকে টাকা ফেরত না দেয় তাহলে থানায় গিয়ে প্রাথমিক অবস্থায় জিডি করতে হবে। থানায় করা জিডির কপি নিয়ে বিকাশ অফিসে চলে যাবেন। বিকাশ অফিস থেকে ওই ব্যক্তিকে কল করে টাকা ফেরত দেওয়া হবে। যদি ঐ ব্যাক্তি আপনার টাকা ফেরত না দেয় তাহলে তার টাকার প্রমাণ দিতে বলবে বিকাশ অফিস। যদি সে প্রমাণ দিতে না পারে তখন আপনার টাকা ফিরে পাওয়ার সম্ভাবনা আছে।

পরবর্তীতে ওই ব্যক্তি যদি কোন ধরনের প্রমাণ না দিতে পারে তাহলে বিকাশ অফিস থেকে আপনার কাছে আপনার মোবাইলের টাকা ফেরত পাঠানো হবে এভাবে আপনারা খুব সহজেই বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে তা উদ্ধার করতে পারবেন। তবে অবশ্যই প্রথম অবস্থায় কিন্তু আপনাকে থানায় গিয়ে জিডি করে তারপরেই বিকাশ অফিসে যেতে হবে।

উপরের দেওয়া পদ্ধতি অনুযায়ী আপনারা খুব সহজেই বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে তা উদ্ধার করতে পারবেন পরবর্তীতে আরও কিছু পদক্ষেপ আছে যেগুলোর মাধ্যমে আপনারা টাকা উদ্ধার করতে পারবেন এক্ষেত্রে আমরা নিচে বিস্তারিতভাবে তা তুলে ধরেছি।

আরো পড়ুনঃ  পুলিশ কিভাবে কল লিস্ট বের করে

কোন ব্যক্তি যদি আপনাকে বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা পাঠায় তাহলে পরিশ্রম কিন্তু অবশ্যই আপনাকে করতে হবে এজন্য আমাদেরকে সব সময় মোবাইল ব্যাংকিং করার ক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্বন করা অতীব জরুরী। কেননা ভুল নাম্বারে টাকা পাঠানোর পরে অনেকেই দিতে রাজি হয় না অথবা কম থাকার কারণে অনেকেই দিতে রাজি হয়না তাই অবশ্যই টাকা পাঠানোর আগে সর্তকতা অবলম্বন করা জরুরী।

বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা গেলে করণীয় কি

আপনার যদি বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে যায় তাহলে তাৎক্ষণিকভাবে আপনারা কাস্টমার কেয়ারে ফোন দিবেন ফোন দেওয়ার পরে। কাস্টমার কেয়ারে আপনার বিস্তারিত তথ্য দিয়ে ভেরিফিকেশন সম্পন্ন করে ট্রানজেকশন টি ক্যানসেল করে দিতে বলবেন। এক্ষেত্রে যদি ট্রানজেকশন ক্যান্সেল করে দেয় তাহলে আপনার টাকা পাওয়ার সম্ভাবনা আছে।

সাধারণত এই ট্রানজেকশন ক্যানসেল করার জন্য আপনাকে অবশ্যই বিকাশ এজেন্ট এর সাথে যোগাযোগ করে আপনার নাম্বার এবং ট্রানজেকশন আইডি ব্যবহার করতে হবে যে ট্রানজেকশন আইডি দিয়ে আপনি টাকা পাঠিয়েছেন সেই ট্রানজেকশন আইডি এবং যার কাছে যার নাম্বারে টাকা পাঠিয়েছেন সেটা দেখাতে হবে। এইভাবে আপনারা বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা পাঠালে ক্যানসেল করতে পারবেন।

বিকাশে টাকা পাঠানো ক্যানসেল করে দিন

আপনি যদি আননোন কোন বিকাশ নাম্বারে টাকা পাঠিয়ে থাকেন তাহলে 72 ঘণ্টার মধ্যেই সে টাকা উঠাতে পারবে না। এক্ষেত্রে আপনি এই সময়ের মধ্যে আপনার বিকাশ মোবাইল অ্যাপস থেকে খুব সহজেই সেন্ড মানি অপশনে গিয়ে তা ক্যানসেল করে দিতে পারবেন। যেহেতু অভিব্যক্তির এখন পর্যন্ত কোন বিকাশ একাউন্ট নাই সে ক্ষেত্রে আপনি এটি খুব সহজেই ক্যানসেল করে আপনার টাকা আবার পুনরায় ফেরত নিয়ে আসতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ  BOILER Job Circular 2021 বয়লার কার্যালয় ড্রাইভার পদে চাকরি

তবে অবশ্যই জেনে রাখবেন যে আপনার যদি টাকা চলে যায় এবং তার যদি বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে থাকে তাহলে কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে সে টাকা তুলে নিতে পারবে তবে এই ক্ষেত্রে আপনাকে অন্য একটি পদ্ধতি অবলম্বন করা লাগবে যেতে হচ্ছে থানায় গিয়ে জিডি করার পরে বিকাশ অফিসে গিয়ে আপনাকে প্রমাণ দিয়ে সেই টাকার জন্য মামলা করতে হবে। এইভাবে আপনারা বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে ফেরত নিয়ে আসতে পারবেন।

বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা গেলে প্রথম অবস্থায় করণীয়

বিকাশে যদি ভুল নাম্বারে টাকা চলে যাই তাহলে প্রথমীক অবস্থায় আপনাকে ফোন দিতে পারেন তবে কম টাকার সংখ্যা হলে এই কাজটি করবেন। যদি বেশি মাত্রায় টাকা প্রদান করে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনি উপযুক্ত পদক্ষেপ নিতে হবে সরাসরি আপনি থানায় গিয়ে জিডি করার পরে সেই জিডির কপি হাতে নিয়ে আপনি বিকাশ সেন্টারে চলে যাবেন সেখানে গিয়ে আপনার বিষয়টি খুলে বলার পরে তাকে অফিশিয়াল ভাবে ফোন দিবে। ফোন দেওয়ার পরে ওই ব্যক্তি যদি টাকা ফেরত দেয় তাহলে তার বিরুদ্ধে কোনো ধরনের পদক্ষেপ নিবে না।

বিকাশ থেকে বলার পরেও যদি আপনার টাকা ফেরত না দেয় এবং আপনার যদি উপযুক্ত প্রমাণ থাকে তাহলে তাৎক্ষণিকভাবেই বিকাশ অফিস থেকেই আপনাকে থানায় মামলা করার জন্য সাহায্য করবে এক্ষেত্রে যেকোনো তথ্য দরকার সবগুলো দিয়ে সহায়তা করবে এই ক্ষেত্রে তার যেই নামে রেজিস্ট্রেশন করা আছে এবং ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা আছে তা সম্পূর্ণ আপনাকে তারা প্রোভাইড করবে।

তাই বেশি মাত্রায় টাকা যদি আপনি প্রদান করে থাকেন তাহলে তাৎক্ষণিকভাবে তাকে ফোন না দিয়ে সরাসরি আপনি থানায় গিয়ে জিডি করতে পারেন অথবা প্রথম অবস্থায় থাকে একবার ফোন দিয়ে যদি সে রাজি হয় দিতে তাৎক্ষণিকভাবে তাহলে তো দিয়ে দিলো আর যদি না দেয় তাহলে আপনারা তাৎক্ষণিকভাবে থানায় মামলা করে ফেলুন তার সঙ্গে কোনো ধরনের উচ্চবাচ্য কথা বলবেন না।

আরো পড়ুনঃ  বিকাশ একাউন্ট লক হলে করনীয়

তাকে কোন ধরনের গালি গালাজ করবেন না এবং তাকে কোন ধরনের হুমকি দিবেন না তা না হলে আপনার টাকা না দিতেও পারে আর সে যদি সময় নাই তাকে কিছু সময় দিতে পারেন তবে এক্ষেত্রে অবশ্যই বেশিক্ষণ সময় দিবেন না তা না হলে আপনার টাকা না পাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে আবার অনেকে এমন করে যে অধিক সময় নেওয়ার পরে আস্তে আস্তে সে আপনার টাকা না দিতে পারে।

বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে কল দিন

বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা গেলে প্রথম অবস্থায় সরাসরি কাস্টমার কেয়ারে কল দিয়ে ট্রানজেকশন টি ক্যানসেল করতে বলবেন সে যদি ট্রানজেকশন ক্যানসেল না করতে পারে। থানায় গিয়ে একটি জিডি করে ফেলুন এবং ওই ব্যক্তিকে ফোন দিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করুন যে আপনার নামে আমি জিডি করব আপনি যদি টাকা ফেরত না দেন।

সে যদি টাকা ফেরত দিতে চাই এবং তাৎক্ষণিকভাবে দিয়ে দেয় তাহলে আপনি তার বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নিবেন না। আর সে জিডি করার পরেও যদি আপনাকে টাকা দিচ্ছে না তাহলে ওই জিডির কপি নিয়ে আপনি সরাসরি বিকাশ সেন্টারে চলে যাবেন সেখানে যাওয়ার পরে আপনি ট্রানজেকশন আইডি এবং যেই নাম্বারে টাকা পাঠিয়েছেন সেই নাম্বারটি তাদেরকে দিবেন তারা ফোন করে আপনার টাকা ফেরত চাইবে। এক্ষেত্রে যদি ফেরত না দেয় তাহলে সমস্ত তথ্য দিয়ে আপনাকে পুনরায় মামলা করতে বলবে।

বিকাশে টাকা পাঠানোর ক্ষেত্রে সর্তকতা

বিকাশে টাকা পাঠানোর ক্ষেত্রে অবশ্যই সর্তকতা স্বরূপ কয়েকবার নাম্বারটি যাচাই বাছাই করবেন এবং আপনি যে নাম্বারে টাকা পাঠাচ্ছেন সেই নাম্বারটি তাকে ফোন দিয়ে পুনরায় জিজ্ঞেস করে নিবেন। এবং আপনি যদি বিকাশ অ্যাপ থেকে টাকা পাঠান তাহলে তার ডিটেলস আপনি সেখানে দেখতে পাবেন সেই নাম অনুযায়ী আপনি পরবর্তীতে তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ  পুরুষের জন্মনিয়ন্ত্রণ ইনজেকশন ব্যবহার

আপনি যেই টাকাটা পাঠাচ্ছেন সেই টাকাটা একটি মেসেজ আকারে আপনাকে দেখানো হবে যে আপনি কত টাকা পাঠাচ্ছেন সেই মেসেজটি অবশ্যই সংগ্রহ করে রাখুন। এবং সেখানে যেয়ে ট্রানজেকশন আইডি ব্যবহার করা হয়েছে সেই ট্রানজেকশন আইডি অবশ্যই সংগ্রহ করুন এতে করে আপনি পরবর্তীতে তার বিরুদ্ধে যে কোন ধরনের পদক্ষেপ নিতে পারবেন এবং ওই ভুলে যদি আপনি টাকা পাঠিয়ে থাকেন তাহলে সেটাও উদ্ধার করতে পারবেন। ধন্যবাদ এই ছিল আজকে আমাদের বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা পাঠালে করনীয় কি এই নিয়ে বিস্তারিত তথ্য।

Comments

No comments yet. Why don’t you start the discussion?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *