মাথা ব্যথা কমানোর ১০টি ঔষধের নাম ও দাম

মাথা ব্যথা কমানোর ১০টি ঔষধের নাম
মাথা ব্যথা কমানোর ১০টি ঔষধের নাম

মাথা ব্যথা প্রায় সব মানুষেরই হয়ে থাকে। দুশ্চিন্তাসহ বিভিন্ন কারণেই মাথা ব্যথা হয়ে থাকে। তাই আজকে আমরা আপনাদেরকে জানাবো মাথা ব্যথার ওষুধের নাম কি এবং মাথা ব্যথা ওষুধ কোনগুলো খাওয়া ভালো হবে এবং মাথা ব্যথা ওষুধের দাম সহ বিস্তারিত তথ্য।

বাজারে নানা ধরনের নানা কোম্পানির মাথা ব্যথার ওষুধ রয়েছে। তবে সব ওষুধ খেয়ে সবার জন্য কার্যকরী হয় সেটাও কিন্তু না। তাই আপনার মাথা ব্যাথার ধরন কি এবং কতদিন যাবত মাথাব্যথা হচ্ছে এটাও জানা প্রয়োজন আছে। তাই আজকে কোন ওষুধ কখন খাবেন এবং কোন ওষুধগুলো আপনার জন্য ভালো হবে এই কনটেন্টের মাধ্যমে জানতে পারবেন।

সাধারণত কারো মাথাব্যথা থাকলে একদিকে যেমন মন ভালো থাকে না উপরের দিকে আপনার শরীরও কিন্তু ভালো থাকবে না। মাথা ব্যাথা হলে দুশ্চিন্তা কাজ করতে পারে কোন কাজেই ভাল মত মন বসে না পড়াশোনা সহ নানা ধরনের কাজেই কিন্তু মন বসে না।

তাই আজকে আমরা আমাদের পাঠকের জন্য বাছাই করা বাজারের সেরা মানের ১০ টি মাথা ব্যথার ওষুধ নিয়ে আলোচনা করব। আশা করছি আপনারা এই ১০ টি ওষুধ সম্পর্কে জেনে মাথা ব্যথার সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

মাথা ব্যথার ওষুধের নাম

মাথা ব্যথার ওষুধের নাম almitriptane, rizatriptane এগুলো শুধু তীব্র মাথা ব্যথার জন্যই খেতে হবে। নরমাল মাথা ব্যথা ওষুধ হিসেবে শুধুমাত্র প্যারাসিটামল,অ্যাসপিরিন বা আইবুপ্রফেন সেবন করতে পারেন। তাছাড়াও বাজারে আরো অনেক ট্রিপটেন জাতীয় ওষুধ পাওয়া যায়। যেগুলো তীব্র মাথাব্যথা থেকে মুক্তি দিয়ে থাকে।

যদি মাথা ব্যাথার সাথে অধিক পরিমাণ জ্বর উঠে তাহলে অবশ্যই ডাক্তারে পরামর্শ নিতে হবে। সেই সাথে প্রয়োজনীয় যে সমস্ত মলম আছে সেগুলো ব্যবহার করতে হবে যেমন মাথা ব্যথা কমানোর জন্য কিছু ড্রপ পাওয়া যায় সেগুলো ব্যবহার করে দেখতে পারেন। সাধারণত নাকে দুই থেকে তিন ফোঁটা দেওয়ার পরেই মাথা ব্যথা অনেকটাই কমে যায়।

যদি নিয়মিত তীব্র আকারে মাথাব্যথা দেখা দেয় তাহলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করা উচিত। আপনি যদি দীর্ঘদিন যাবত নরমালি ওষুধগুলো খেতে থাকেন এবং নিজের ইচ্ছামত যদি মাথা ব্যথার ওষুধ খেতে থাকেন তাহলে কিন্তু পরবর্তীতে আপনার অ্যান্টিবেটিক কাজ না করার সম্ভাবনাও বেশি থাকবে।

যে কোন সময় হুট করেই মাথা ব্যাথার ওষুধ খাবেন না এতে করে পরবর্তীতে ওষুধ না খেলে কিন্তু মাথা ব্যথা সারিয়ে তুলতে পারবেন না। যদি স্বাভাবিকভাবে মাথাব্যথা সারিয়ে তুলতে পারেন তাহলে সেটাই করা উচিত।

তাই আপনাদের উচিত হবে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী মাথা ব্যথার ওষুধ সেবন করা। তবে নরমাল যদি দুই একদিন অথবা আপনি জার্নি করেছেন এমন অবস্থায় কোনো উপায় না থাকে তার পরেই আপনারা শুধু মাত্র এই ওষুধগুলো সেবন করতে পারেন।

যেকোনো নাম্বারে কল লিস্ট বের করুন সহজেই

মাথা ব্যথা ওষুধের নাম কি

মাথা ব্যস্ত ওষুধের নাম হল almitriptane এই মাথা ব্যাথার ওষুধটি তীব্র মাথা ব্যথার জন্য অথবা নরমাল মাথা ব্যথার জন্য কাজ করে থাকে। তাছাড়া নরমাল মাথা ব্যথার ওষুধ হিসেবে আপনারা প্যারাসিটামল খেতে পারবেন। এতে করে আপনার মাথা ব্যথার সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

তীব্র আকারে মাথাব্যথা দেখা দিলে অবশ্যই আমাদের দেওয়া এই ওষুধ গুলো almitriptane, rizatriptane সেবন করতে পারেন এতে করে আপনার মাথা ব্যথা দ্রুত সেরে যাবে। মাথাব্যথা দেখা দিলে মানুষের কোন কাজে মন বসে না। যদি ব্যথার মাত্র তীব্র হয় তাহলে যন্ত্রণা সহ আরও বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দিয়ে থাকে।

মাথা ব্যথার ওষুধের নাম

এনিলিক
আরিন
লজরিন
মিগ্রাটল
মিগরেক্স
মিনোপা
মাইগান
নামিটোল
টলিফ
টলমিক
টাফনিল

এছাড়াও বাজারে আরও নানা ধরনের মাথা ব্যথার ওষুধ রয়েছে এক্ষেত্রে বিভিন্ন কোম্পানির ওষুধ কিন্তু পাওয়া যায়। কোন ওষুধ আপনার কাজ করে সে বিষয়টি আপনাকে উপলব্ধি করা লাগবে। অনেক সময় নরমাল ওষুধগুলোতে অনেকের কাজ হয়ে থাকে যেমন অনেকের প্যারাসিটামল খেলেও কিন্তু মাথাব্যথা সেরে যায়।

মাথা ব্যাথার ধরন অনুযায়ী আপনাকে মাথা ব্যথার ওষুধ সেবন করা উচিত। মাথা ব্যথা যদি তীব্র আকার ধারণ করে থাকে এবং এটি যদি নিয়মিত হয়ে থাকে তাহলে এই সমস্ত ওষুধগুলো না খেয়ে সরাসরি ডাক্তারের দেওয়া পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করাই উচিত।

মাথা ব্যথার জন্য কি ওষুধ খাব খাবেন

আপনার যদি নরমাল মাথা ব্যথা হয়ে থাকে তাহলে প্যারাসিটামল খাবেন তাহলেই নরমাল মাথা ব্যাথা সেরে যাবে। আর যদি তীব্র আকারে মাথাব্যথা থাকে তাহলে আপনারা almitriptane, rizatriptane  এই দুইটি ওষুধের যেকোনো একটি ওষুধ খেলেই যেকোনো ধরনের মাথা ব্যথা দূর হয়ে যাবে।

এছাড়া যদি তীব্র মাথাব্যথা তার সঙ্গে যদি শরীরে জ্বর অথবা সর্দি কাশি লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিয়েই ওষুধ সেবন করা উচিত। মনে রাখবেন কখনোই নিজ ইচ্ছায় নিজের মনের মত করে যে কোন ওষুধ খাবেন না এবং ফার্মেসিতেও গিয়ে ও যে কোন ওষুধ কিনে নিজেই খাওয়ার চেষ্টা করবেন না। কেননা কোন কোন ক্ষেত্রে সমস্ত ওষুধগুলো সাইড ইফেক্ট হিসেবে আপনার সমস্যা দেখা দিতে পারে।

আরো পড়ুনঃ  ওয়ালটন মোবাইল দাম ২০২২ Walton Mobile Price in BD 2022

মাথা ব্যথা ওষুধের নাম ও দাম

মাথা ব্যথা ওষুধের নামমাথা ব্যথা ওষুধের দাম
এনিলিক৮ টাকা=/
আরিন১০ টাকা=/
লজরিন১০ টাকা=/
মিগ্রাটল১০ টাকা=/
মিগরেক্স৭ টাকা=/
মিনোপা১০ টাকা=/
মাইগান১০ টাকা=/
নামিটোল৯ টাকা=/
টলিফ৮ টাকা=/
টলমিক১০ টাকা=/
টাফনিল৮ টাকা=/

ফার্মেসিতে মাথা ব্যথার এই ওষুধগুলো বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দাম নির্ধারিত হয়ে থাকে। ওষুধের দাম যখন বাড়তি থাকে তখন কিন্তু এই সমস্ত ওষুধগুলো বাড়তি দামেই বিক্রি করা হয়ে থাকে। তাই আপনারা যখন মাথা ব্যথার ওষুধ গুলো কিনবেন তখন অনলাইন থেকেও দেখে নিতে পারবেন বর্তমানে এই ওষুধটির দাম কত যাচ্ছে এ বিষয় নিয়ে।

মাথা ব্যথার ওষুধের দাম কিন্তু বিভিন্ন সময়েই কম বেশি হয়ে থাকে। বাজারে মাথা ব্যথার ওষুধের দাম যখন বৃদ্ধি পায় তখন কিন্তু সমস্ত ফার্মেসিতেই মাথাব্যথার ওষুধের দাম বৃদ্ধি পেয়ে থাকে।

আমরা আমাদের এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে মাথা ব্যাথার সহ আরো রোগ বিষয়ে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করে থাকে আশা করি আপনারা আমাদের এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আরো অন্যান্য তথ্য পাবেন। চোখ রাখুন আমাদের এই ওয়েবসাইটে এবং প্রতিনিয়ত যে কোন তথ্য গ্রহণ কন্টেন্ট পেতে শেয়ার করুন।

কি কারনে মাথা ব্যথা হয়

  • অতিরিক্ত টেনশন করলে
  • আধা চাকরি বা কফি বান অতিরিক্ত করলে
  • স্মোকিং করলে মাথা ব্যথা হয়
  • মদ্যপান সহ আরো অন্যান্য নিঃশ্বাসক্ত হলে
  • রৌদ্রে অনেকক্ষণ থাকলে মাথাব্যথা হয়
  • পর্যাপ্ত বিশ্রাম না হলে মাথা ব্যথা হয়
  • অতিরিক্ত শব্দ দূষণের জন্য মাথাব্যথা হয়
  • পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান না করলে
  • কঠোর পরিশ্রম করার পরে বিশ্রাম না নিলে
  • পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম না হলে মাথা ব্যথা হয়
  • অধিক পরিমাণ ট্রাভেল করলে মাথা ব্যথা হওয়ার সম্ভাবনা থাকে
  • কোন অসুস্থ হলে মাথা ব্যথা দেয়
  • জ্বর সর্দি কাশি হলেও মাথা ব্যথা দেয়
আরো পড়ুনঃ  মৎস্য অধিদপ্তর নিয়োগ Department of Fisheries Job Circular

এসব মস্ত কারণগুলোর জন্যই মাথা ব্যথা হয়ে থাকে। তবে মাঝেমধ্যে যদি দু একদিন মাথা পেতে হয় তাহলে আমাদের দেওয়া এই ওষুধগুলোর মাধ্যমে আপনারা খেয়ে দেখতে পারেন। যদি নিয়মিত হয়ে থাকে তাহলে কিন্তু অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে এক্ষেত্রে নিজেই কোন ওষুধ সেবন করতে যাবেন না।

মাথা ব্যথা হওয়ার আগে সতর্কতা

  • অতিরিক্ত টেনশন করা যাবে না
  • বেশি পরিমাণ আদাছা অথবা কফি পান না করা
  • জাতীয় দ্রব্য পান করা থেকে বিরত থাকা
  • নিয়মিত পানি পান করুন
  • রৌদ্রে চলাফেরা কম করা
  • প্রয়োজনমতো বিশ্রাম নেওয়া
  • অতিরিক্ত শব্দ দূষণ থেকে দূরে থাকা
  • নিয়মিত ব্যায়াম করা
  • প্রয়োজনমতো খাবার গ্রহণ করা
  • ভিটামিন জাতীয় শাকসবজি গুলো বেশি বেশি খাওয়া

তাছাড়া আরো অনেক বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে যেমন প্রয়োজনমতো যদি আপনি পানি পান না করেন তার কারণেও কিন্তু মূলত বেশি পরিমাণ মাথাব্যথা দেখা দেয়। তাই আপনার প্রয়োজনীয় দৈনিক যতটুকু পানি আপনার শরীরের জন্য প্রয়োজন ততটুকু অনুযায়ী পানি পান করুন।

মাথা ব্যথা
মাথা ব্যথা

মাথা ব্যথার ওষুধ নিয়ে সতর্কতা

যেকোনো সময় মাথাব্যথা দেখা দিলেই যে আপনাকে ওষুধের মাধ্যমে সেটি সারিয়ে তুলতে হবে এমন কোন বিষয় নয়। যদি প্রথম অবস্থায় আপনি ওষুধ সেবন করতে থাকেন তাহলে কিন্তু পরবর্তীতে আপনাকে ওষুধের মাধ্যমেই মাথাব্যথা সারিয়ে তুলতে হবে।

তাই প্রথম অবস্থায় আপনারা সাধারণভাবে মাথাব্যথা সারিয়ে তোলার চেষ্টা করবেন এতে করে ভালো তেল অথবা অন্য কোন পদ্ধতিতে মাসাজ করে যদি মাথা ব্যাথা সারিয়ে তোলা যায় তাহলে সেই ভাবে চেষ্টা করুন।

আবার অনেকের আছে যারা কিনা পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম না হওয়ার কারণে মাথাব্যথা হয় এতে করে ঘুমালে ঠিক হয়ে যায়। তাই আপনারাও চেষ্টা করে দেখুন যদি ঘুমালে মাথা ব্যথা ঠিক হয়ে যায় তাহলে ওষুধ খাওয়ার কোন দরকার নেই।

আরো পড়ুনঃ  জন্ম নিয়ন্ত্রণ ইনজেকশন দাম

কোনমতেই যখন আপনি মাথা ব্যথা কোনভাবেই সারিয়ে তুলতে পারছেন না তখনই ওষুধের দ্বারপ্রান্ত হবেন। এবং যদি দেখেন যে নিয়মিত একইভাবে আপনার মাথা ব্যথা বাড়তেই আছে তাহলে অবশ্যই ভালো কোন অভিজ্ঞ মাথা বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন।

মাথা ব্যথার ওষুধ টা আপনি টাফনিল

মাথা ব্যথার সব থেকে কার্যকরী ভালো ওষুধ টাফনিল। যে কোন সময় মাথা ব্যাথা হলে এই ওষুধটি বাজার থেকে ১০ টাকা দিয়ে কিনে এনে খেলেই আধা ঘন্টা অথবা এক ঘন্টার মধ্যে এই মাথা ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তাই যদি অতিরিক্ত মাথাব্যথা থাকে যে কেউ টাফনিল টাকা দিয়ে এইটা নীল ওষুধটি খেয়ে নিলেই মাথা ব্যাথা সেরে যাবে।

বর্তমান বাজারে আরো অনেক ধরনের মাথা ব্যথার ওষুধ রয়েছে তার মধ্যে টাফ নীল সবথেকে জনপ্রিয় একটি ওষুধ যেটা খেলে খুব সহজেই খুব তাড়াতাড়ি মাথাব্যথা দূর করা যায়। অতিরিক্ত ঠান্ডার কারণে অথবা অতিরিক্ত জার্নি করার কারণে কারো যদি মাথা ব্যথা দেয় তাহলে সঙ্গে সঙ্গে এই ওষুধটি খেয়ে নিতে পারবেন।

তবে যদি নিয়মিত এমন সমস্যা দেখা দেয় তাহলে কিন্তু অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত এবং সেই অনুযায়ী ওষুধ সেবন করা উচিত। সবসময় একই ধরনের ওষুধে কাজ করে না তাই অবশ্যই এই বিষয়গুলো আপনাদের জেনে নিতে হবে যে কখন কোন ওষুধ খাওয়া উচিত এবং মাথা ব্যথা কেমন হচ্ছে সেই অনুযায়ী ওষুধ খাওয়া উচিত।

মাথা ব্যথা নিয়ে প্রশ্ন এবং উত্তর

মাথা ব্যাথার ঔষধের নাম কি?

মাথা ব্যথার ওষুধের নাম almitriptane। এই ওষুধটি তীব্র মাথা ব্যথার জন্য অথবা নরমাল মাথা ব্যথার জন্য খাওয়া যাবে এতে করে খুব তাড়াতাড়ি মাথাব্যথা সারিয়ে তুলতে সাহায্য করবে।

মাথা ঘুরানোর ঔষধের নাম কি

মাথা ঘোরানোর ওষুধের নাম হল ভেস্টিবুলার সিডেটিভ এটি। এই ওষুধটা খেলে মাথা ঘোরা অনেক অংশে কমে যাবে। তাছাড়া অনেক ব্যায়াম রয়েছে এবং নরমাল কিছু প্যারাসিটামল পাওয়া যায় যেগুলোর মাধ্যমে মাথা ঘোরা সারিয়ে তোলে।

জ্বর মাথা ব্যাথার ঔষধের নাম

জ্বর ও মাথাব্যথার ওষুধ হিসেবে প্যারাসিটামল খেতে হবে। যদি অধিক পরিমাণ মাথা ব্যথা দেখা দেয় তাহলে almitriptane এই ওষুধটি খেতে পারেন। তীব্র মাথাব্যথাসহ যেকোনো ধরনের মাথাব্যথা দূর করে ফেলে।

সর্দি ও মাথা ব্যাথার ঔষধ নাম

সর্দি ও মাথা ব্যাথা থাকলে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী এই মাথা ব্যথার ওষুধ সেবন করুন। সর্দি মাথা ব্যথা বিভিন্ন কারণেও হতে পারে তাই অবশ্যই অভিজ্ঞ ডাক্তার পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ গ্রহণ করুন।

Comments

No comments yet. Why don’t you start the discussion?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *