মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা-মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা বেতন কত

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা
মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা

প্রিয় পাঠক মালয়েশিয়া সম্পর্কে নতুন করে মানুষের মধ্যে জানানোর কিছু নেই। কারণ মুসলিম বিশ্বে ইসলামিক যে রাষ্ট্রগুলো রয়েছে সেগুলোর মধ্যে সবথেকে অন্যতম রাষ্ট্র হল মালয়েশিয়া। এই দেশটির আয়তন অনেক ক্ষুদ্র হলেও দেশটির লেখাপড়া,সংস্কৃতি ,বিজ্ঞান সব দিক দিয়েই বেশ উন্নত হয়ে গেছে। এরই পাশাপাশি এদেশটিতে বিপুল পরিমাণ শ্রমিক সংকট দেখা দেয়।

যার কারনে মুসলিম প্রধান এই দেশটিতে প্রতিবছর বিপুল সংখ্যক কর্মী সংকট দেখা দেয়। যার ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয়। বাংলাদেশ থেকে নানা ধরনের পেশায় নিযুক্ত শ্রমিক পাঠানো হয়। তবে মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা নিয়ে বাংলাদেশ থেকে বহু মানুষ যার জন্য আগ্রহী হয়।

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা

মালয়েশিয়ার গার্মেন্টস ভিসা কাজ করার জন্য ইতিমধ্যে বাংলাদেশ, ভারত এবং শ্রীলংকা থেকে বিপুল পরিমাণ শ্রমিক নিয়েছে মালয়েশিয়া সরকার। কিন্তু এত পরিমান শ্রমিক নেওয়ার পরেও মালয়েশিয়া গার্মেন্টসগুলোতে শ্রমিক সংকট দেখা দেয়। তাই আপনি চাইলে খুব সহজেই মানুষের গার্মেন্টস ভিসা পাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ  ইথিওপিয়া গার্মেন্টস ভিসা ২০২৩ | ইথিওপিয়া গার্মেন্টস ভিসা বেতন কত

তবে মালয়েশিয়া গার্মেন্টসগুলো রয়েছে দুইটি ভাগে বিভক্ত। মানুষের কিছু গার্মেন্টস রয়েছে একেবারেই ক্ষুদ্রতর। যেগুলোতে স্বল্প সংখ্যক শ্রমিক দিয়েই পুরো গার্মেন্টস পরিচালনা করা হয়। অপরদিকে বেশ কিছু গার্মেন্টস রয়েছে বৃহৎ আকার এবং এখানে প্রায় ১৫ থেকে ২০ হাজার পর্যন্ত শ্রমিক কাজ করতে পারে। তাই আপনি যদি মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা কাজ করতে চান তাহলে অবশ্যই বিরহ থাকার যে গার্মেন্টসগুলো রয়েছে সেগুলো যোগদান করার চেষ্টা করবেন।

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা ২০২৩

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা ২০২৩ সম্পর্কে বেশ কিছু আপডেট তথ্য আমরা এই কন্টেন্টের মাধ্যমে তুলে ধরার চেষ্টা করব। আমাদের এই কনটেন্টের মাধ্যমে আপনি খুব সহজে মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা সম্পর্কিত নতুন আপডেট তথ্যগুলো পেয়ে যাবেন। তবে অবশ্যই আপনাকে খুব মনোযোগ সহকারে আমাদের এই কন্টেন্টটি পড়তে হবে। কনটেন্ট এর মাধ্যমে আমরা তুলে ধরব মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা পেতে কোন ধরনের রেক্রুটমেন্টগুলো জমা দিতে হয়। এছাড়াও দেশের বাহির থেকে মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা পাওয়া সম্ভব কিনা। এরকম আরো নানা ধরনের জানা-অজানা তথ্য নিয়ে আমাদের আজকের এই কন্টাক্টটি।

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা বেতন কত

একজন মালোশিয়া গার্মেন্টস কর্মীর বেতন সর্বনিম্ন ৬০,০০০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা। মালয়েশিয়ার গার্মেন্টসগুলোতে আপনি কোন সেক্টরের কাজ করবেন সেটার উপরে আপনার বেতন নির্ভর করবে। আপনি যদি একজন অভিজ্ঞতা সম্পন্ন অপারেটর হন তাহলে মালয়েশিয়ার গার্মেন্টসগুলোতে এক লক্ষ টাকা পর্যন্ত বেতন পাবেন।

আরো পড়ুনঃ  জাপানি স্টুডেন্ট ভিসা খরচ | জাপান স্টুডেন্ট ভিসা ২০২৩

তবে বিশেষভাবে আমরা আপনাদের একটু সতর্ক করতে চাই যে মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা নিয়ে যদি আপনি বেতন ভাবে সেখানে গিয়ে কাজ করেন তাহলে আপনি খুবই অল্প পরিমাণ বেতন পাবেন। সেই সাথে মাসিক বেতন হিসেবে কাজ করলে আপনাকে অনেক পরিশ্রম করতে হবে এবং তারা আপনাকে অনেক কড়া শাসনের মধ্যে রাখবে। যার কারণে মালয়েশিয়ায় যারা গার্মেন্টস সেক্টরে কাজ করে তারা সবাই কন্টাকে কাজ করে। আপনি যখন একটি নির্দিষ্ট কন্ট্রাক এর মধ্যে দিয়ে কাজ করবেন তখন অধিক মুনাফা আয় করতে পারবেন এবং কেউ আপনাকে এসে কোন ঝাড়ি দিতে পারবেনা। তাই অবশ্যই মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা কাজ করলে এ বিষয়টি লক্ষ্য রাখবেন।

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা কিভাবে পাবেন

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা পাওয়ার জন্য অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা করার কিছু নেই। কারণ মানুষের গার্মেন্টস এসে আপনারা খুব সহজে এজেন্সি থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন। তবে বিশেষভাবে মনে রাখতে হবে আপনার রিকুয়েটমেন্টগুলোর মধ্যে যদি কোন ধরনের জালিয়াতি এবং মানুষের গার্মেন্টসে আবেদন করতে গিয়ে কোন ভুল করে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনার ভিসা কার্যক্রমটি বাতিল হয়ে যাবে।

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া কয়েকটি পদ্ধতিতে হয়ে থাকে। মনে করেন আপনি একজন বাংলাদেশী নাগরিক কিন্তু বর্তমানে কোন কাজের জন্য অন্য কোন দেশে অবস্থান করছেন। সে ক্ষেত্রে আপনি যদি মানুষের গার্মেন্টস ভিসা আবেদন করতে চান তাহলে আপনার আবেদনটি হবে একটু ভিন্ন প্রক্রিয়ায়। অপরদিকে আপনি যদি দেশে থেকে স্বশরীরে মানুষের গার্মেন্টস ভিসার জন্য আবেদন করেন ভিন্ন ধরনের প্রক্রিয়ার মাধ্যমে।

আরো পড়ুনঃ  দুবাই রেসিডেন্স ভিসা-দুবাই রেসিডেন্স ভিসা খরচ

এক্ষেত্রে মালয়েশিয়া যেহেতু অভিজ্ঞ গার্মেন্টস শ্রমিক ছাড়া নিয়োগ দেয় না সে ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই বাংলাদেশ যেকোনো একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকে দক্ষতা অর্জন করতে হবে। কিন্তু আপনি যদি বিদেশ থেকে মানুষের গার্মেন্টসে আবেদন করেন সেক্ষেত্রে পূর্বের কোন দক্ষতার ডকুমেন্টস আপনাকে জবাব দিতে হবে। উক্ত বিষয়গুলো যদি সঠিকভাবে প্রধান করা হয় তাহলে যাচাই-বাছাইয়ের শেষে সর্বোচ্চ এক মাসের মধ্যে আপনার ভিসা প্রস্তুত হয়ে যাবে।

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসার দাম কত

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা দাম হল ১ লক্ষ ৬৫,০০০ টাকা। এই রিপোর্টটি হল ২০২২ সালের তথ্য অনুযায়ী। তবে ২০২৩ সালে এসে বেশ কিছু তথ্য পরিবর্তন করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা জন্য কোন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি না দেওয়ার কারণে মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা দাম সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না। তবে গতবারের দামে এবারে আর মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা পাওয়া সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছে বেশ কিছু সংস্থা। এবারে মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা পেতে হলে সর্বোচ্চ এক লক্ষ আশি হাজার টাকা পর্যন্ত খরচ করা লাগতে পারে।

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা
                                                                  মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা

মালয়েশিয়ার গার্মেন্টস ভিসার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

  • মালেশিয়ার গার্মেন্টস ভিসার আবেদনের জন্য একটি ভিসা আবেদন ফরম। ফরমটি পূরণ করার সময় সতর্ক থাকতে হবে যেন কোন ধরনের ভুল না হয়।
  • একটি বৈধ পাসপোর্ট থাকতে হবে এবং পাসপোর্ট এর মেয়াদ কমপক্ষে ছয় মাস থাকতে হবে।
  • যে কোম্পানিতে গার্মেন্টস ভিসায় কাজ করতে যাচ্ছেন, সেই গার্মেন্টসের বিবরণ
  • একটি ব্যাংক স্টেটমেন্ট, অবশ্যই আপনার নিজস্ব ব্যাংক স্টেটমেন্ট থাকতে হবে।
  • বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যেতে হলে অবশ্যই পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট থাকতে হবে
  • গার্মেন্টস কাজ করার অভিজ্ঞতা না থাকলে, অন্যতম প্রশিক্ষণ নিতে হবে
  • মেডিকেল রিপোর্ট তৈরি করে রাখতে হবে
আরো পড়ুনঃ  কুয়েত ড্রাইভিং জব সার্কুলার-কুয়েত ড্রাইভিং ভিসা বেতন কত

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস কর্মী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

২০২৩ সালের শুরুর দিকে মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা কর্মী নিয়োগ সম্পর্কে তেমন কোন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেনি। তবে আশা করা যায় খুব শীঘ্রই গার্মেন্টস কর্মীদের জন্য একটি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। আপনারা অনেকে অবগত আছেন যেহেতু ২০২২ সালে বিপুল পরিমাণ কর্মী নিয়েছে মানুষের সরকার। ঠিক এরই ধারাবাহিকতার ২০২৩ সালে এসে অনেক কর্মী নেওয়ার কথা রয়েছে। তাই মালয়েশিয়ার গার্মেন্টস ভিসা কর্মী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি সম্পর্কে সর্বশেষ আপডেট তথ্য জানতে হলে আমাদের ওয়েবসাইটের সঙ্গে থাকতে হবে। আমাদের ওয়েবসাইট সর্বদা সবসময় মালয়েশিয়ার ভিসা সম্পর্কে আপডেট তথ্য আপনাদেরকে জানিয়ে দেবে।

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা প্রসেসিং

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা প্রসেসিং বর্তমান সময়ে একেবারেই সোজা একটি বিষয় হয়ে গেছে, তবে আপনি যদি মানুষের গার্মেন্টস ভিসা প্রসেসিং করার সময় সতর্কতা অবলম্বন না করেন তাহলে আপনাকেও বেশ কিছু জটিল পরিস্থিতিতে পড়তে পারে। বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া গার্মেন্টস কর্মী হিসেবে বিপুল পরিমাণ মানুষ বর্তমানে শ্রম দিচ্ছে।

আরো পড়ুনঃ  বিদেশে গার্মেন্টস চাকরি কিভাবে পাবেন আবেদনসহ বিস্তারিত

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা  প্রসেসিং করতে হলে প্রথমে আপনাকে একটি ভিসা আবেদন করতে হবে। অনেকেই মনে করে অনলাইনের মাধ্যমে স্বাভাবিকভাবে আবেদন করে দিলেই সবকিছু হয়ে যায়, কিন্তু না আপনি যদি অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করেন এরপরও আপনার আবেদনটি হতে হবে একেবারে নির্ভুল। অনেকের বোকামির কারণে মানুষের গার্মেন্টস ভিসা আবেদন বাতিল হয়ে যায়। এবং ভিসা আবেদন করার সময় যে নির্ধারিত ফি নেওয়া হয় সেটাও আর ফেরত দেওয়া হয় না।

তাই আপনি যখন মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা আবেদন করবেন তখন অবশ্যই সকল তথ্য যাচাই বাছাই করে এরপর আবেদন করবেন। আবেদন শেষে আপনাকে নির্দিষ্ট সময় অপেক্ষা করতে হবে। এবং আপনার তথ্যগুলোর উপর নির্দিষ্ট সময় অনুযায়ী যাচাই-বাছাই শেষে আপনাকে একটি চিঠি পাঠানো হবে। আপনার সকল রিকোয়ারমেন্ট গুলো যদি সত্য এবং নির্ভুল হয়ে থাকে তাহলে আপনি খুব শীঘ্রই মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা পেয়ে যাবেন।

আরো পড়ুনঃ  কানাডা গার্মেন্টস ভিসা-কানাডা গার্মেন্টস ভিসা প্রসেসিং

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস কাজে সুযোগ সুবিধা

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস কর্মীদের জন্য বিশেষ কিছু সুবিধা রয়েছে। যেমন আপনি যদি মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা নিয়ে সেখানে কাজ করতে যান তাহলে আপনার ইমিগ্রেশন খরচ, ভিসা খরচ এমনকি যদি কোন অবস্থায় কোয়ারেন্টাইন থাকতে হয় এরপর সে খরচ বহন করবে সেই কোম্পানিগুলো। এছাড়ো মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা কাজের অন্যতম আরেকটি সুবিধা হল আপনার দেশে পৌঁছানোর টিকিট মূল্য সেই কোম্পানি বহন করবে। এছাড়া আপনার খাওয়া দাওয়া সহ বাসস্থান এরকম মৌলিক চাহিদা গুলো সবগুলোই পূরণ করবে মালয়েশিয়া কোম্পানি।

মালেশিয়ার গার্মেন্টস ভিসা নিয়ে সতর্কতা

মালয়েশিয়া গার্মেন্টস ভিসা নিয়ে আমরা একটু সতর্ক করতে চাই আপনাকে, কারণ বাংলাদেশ থেকে যে দেশগুলোতে সবথেকে বেশি সংখ্যক কর্মী গিয়েছে তার মধ্যে এই দেশটি শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে। তাই মালয়েশিয়াতে যেকোনো ধরনের ভিসা নিতে হলে আপনাকে সতর্ক থাকতে হবে। কারণ বিদেশে যাওয়ার জন্য বাংলাদেশের যে পদ্ধতি গুলো রয়েছে সেগুলোর মধ্যে প্রতারক চক্র গুলো ফাঁদ পেতে বসে থাকে। আপনাকে নানাভাবে অর্থের এবং অধিক মুনাফা লাভের লোভ দেখিয়ে তারা তাদের চক্রে ফাঁসিয়ে ফেলবে। তাই অবশ্যই মালেশিয়ার গার্মেন্টসহ কিংবা অন্যান্য কোন ভিসা হোক কখনোই কোন প্রতারক দালাল এবং বেসরকারি এজেন্সি গুলোর থেকে ভিসা প্রসেসিং করাবেন না।

আমেরিকা কাজের ভিসা ২০২৩ | আমেরিকা কাজের ভিসার দাম কত

Comments

No comments yet. Why don’t you start the discussion?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *