সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা-সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা বেতন কত

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা
সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা

আজকে আমাদের মূল আলোচ্য বিষয় হলো সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা কি এবং সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসার সুযোগ সুবিধা তাছাড়াও জানতে পারবেন কিভাবে আপনারা এস্পাস ভিসার জন্য আবেদন করবেন এবং কত টাকা খরচ হয় এই সংক্রান্ত তথ্যগুলোই আজকের এই কন্টেন্ট এ তুলে ধরা হয়েছে। তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য।

সিঙ্গাপুরের বিভিন্ন ধরনের ভিসা সার্ভিস রয়েছে তার মধ্যে সিঙ্গাপুর এস পাস অন্যতম। সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা নেওয়ার জন্য অবশ্যই নির্দিষ্ট একটি কাজের উপর পূর্ণ দক্ষতা থাকতে হবে। তাছাড়াও আরো অন্যান্য কিছু রিকোয়ারমেন্ট আছে এবং সুযোগ সুবিধা আছে এই সংক্রান্ত তথ্যগুলো আমাদের এই কন্টেন্টের মধ্যেই দেখতে পারবেন তাহলে চলুন কথা না বাড়িয়ে দেখে নেওয়া যাক সিঙ্গাপুর এক্স প্লাস ভিসা কি এবং এ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য।

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা কি

দক্ষ জনশক্তিদের জন্য মূলত সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা। কোন কাজে সম্পূর্ণ দক্ষ হলে তখনই সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা পাওয়া যায়। কোন কোম্পানি অথবা যে কোন পেশায় বেশ কিছুদিন কর্মরত থাকার পর একটি অভিজ্ঞতা হয়। ঠিক তখনই তাদেরকে সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা দেওয়া হয়।

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা আবেদন মূলত তারাই করতে পারে যাদের কাজের অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা রয়েছে। অর্থ অভিজ্ঞ লোকদের এ ভিসায় নেওয়া হয় না। তাই সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসায় আবেদন করতে হলে অবশ্যই সম্পূর্ণ অভিজ্ঞ হতে হবে।

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা বেতন কত

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা বেতন মূলত ১৫০০ থেকে ২৫০০ ডলার। তবে কাজের শ্রেণীবিভাগ হিসেবে কিছুটা কম বেশি হয়। বিভিন্ন মানুষ বিভিন্ন পেশায় সিঙ্গাপুর  এস পাস ভিসা নিয়ে থাকে। সব শ্রেণীতে কাজের বেতন এক রকম নয়। তবে ১৫০০ থেকে ২৫০০ এর মধ্যে সিঙ্গাপুরে এস পাস ভিসা বেতন পাওয়া যায়।

আরো পড়ুনঃ  সিঙ্গাপুর ওয়েল্ডিং কাজের ভিসা-সিঙ্গাপুর ওয়েল্ডিং কাজের বেতন

এ ধরনের ভিসার বেতন ওয়ার্ক পারমিট ভিসা থেকে অনেক বেশি। তবে ওয়ার্ক পারমিটে অর্থ দক্ষ হলেও চলে। কিন্তু সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা পেতে হলে আপনাকে পুরোপুরি দক্ষ হতে হবে। পুরোপুরি দক্ষ না হলে এ ধরনের ভিসা পাবেন না। পুরোপুরি দক্ষ এবং কোম্পানির বিশ্বস্ত অর্জন করতে পারলে বেতন ধীরে ধীরে অনেক বেড়ে যাবে।

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা কেন করবেন

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসায় বিশেষ কিছু সুবিধা রয়েছে যা অন্য বিষয় পাওয়া যায় না। এই সুবিধার জন্য অনেকে সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা করার জন্য অনেক আগ্রহ প্রকাশ করে। সিঙ্গাপুর ওয়ার্ড পারমিট ভিসার থেকে সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসার বেতন অধিক বেশি। বেতন বেশি হওয়ায় অনেকেই ওয়ার্ক পারমিট ভিসা থেকে সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা আবেদন করে থাকে।

আপনি যদি সিঙ্গাপুরে অধিক বেতন এবং দীর্ঘস্থায়ী হতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা করতে হবে। অন্যান্য ভিসার থেকে সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসার  সুবিধা অনেক বেশি। সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা করার জন্য অবশ্যই আপনাকে পূর্ণ অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে। সেটা হতে পারে যে কোন পেশার ওপর। তবে অন্যান্য দেশের থেকে সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসার গুরুত্ব অনেক বেশি।

আরো পড়ুনঃ  দুবাই ইনভেস্টর ভিসা খরচ | দুবাই ইনভেস্টর ভিসা পাওয়ার উপায়

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা দাম কত

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা দাম বর্তমান মূল্যে ৬ লক্ষ টাকার মত। তবে আপনি কোন ধরনের ভিসা নিতে চান সেটার উপর নির্ভর করবে ভিসার মূল্য। মায়ানমার ,ইন্ডিয়ার ,নেপাল এসব জায়গা থেকে বেশিরভাগ মানুষ ডেন্টিস্ট এর জন্য এসে থাকে।

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দামের হয়ে থাকে। আপনি কোন ক্যাটাগরিতে সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা নিবেন সেটার উপর নির্ভর করবে ভিসার দাম। তবে সাধারণভাবে 6 লক্ষ টাকার মধ্যেসিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা পাবেন। এছাড়াও বেশ কিছু ক্ষেত্রে টাকার পরিমাণ কিছু কম বেশি হতে পারে।

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসার সুবিধা সুযোগ সুবিধা

সিঙ্গাপুরে যত ধরনের ভিসা পাওয়া যায় সেগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সুযোগ সুবিধা হল  এস পাস ভিসায়। এ ধরনের ভিসায় ফ্যামিলিকে নিয়ে আসার সুযোগ থাকে। এছাড়া অন্যান্য ভিসা থেকে বাড়তি অনেক ধরনের সুযোগ পাওয়া যায় সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসায়।

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা

অনেকেই চাই সিঙ্গাপুরে ফ্যামিলি নিয়ে এসে থাকতে, কিন্তু ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় ফ্যামিলি নিয়ে আসা যায় না কিন্তু সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা তে ফ্যামিলি নিয়ে আসা যায়।

আরো পড়ুনঃ  সিঙ্গাপুর ওয়ার্ক পারমিট ভিসা-সিঙ্গাপুর কাজের ভিসা কত টাকা

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা থেকে এক্সপার্ট ভিসার বেতন অনেক বেশি হয়। ওয়ার্ক পারমিটে একটু কঠিন ধরনের কাজ করতে হয় কিন্তু সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসাতে খুব একটা বেশি কঠিন কাজ করা লাগে না।

দীর্ঘদিন সিঙ্গাপুরে ওয়ার্ক পারমিট পেশায় কাজ করার পর সেখানে একটি প্রসেসের মাধ্যমে সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা করা নেওয়া যায়। যেটি ওয়ার্ক পারমিট শ্রমিকদের জন্য অনেক বড় ধরনের সুবিধা।

সিঙ্গাপুরে এস পাস ভিসা আবেদন

সিঙ্গাপুর এক্স ভিসা আবেদন করার জন্য অবশ্যই সরকারি এজেন্সি গুলোর মাধ্যমে আবেদন করতে হবে কেননা এটি শুধুমাত্র সরকারি এজেন্সি গুলোর মাধ্যমেই আবেদন করা যায়। কারণ পূর্ণ দক্ষতার ভিত্তিতেই শুধুমাত্র  সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসার জন্য লোক নেওয়া হয়। এক্ষেত্রে বিএমইটি অথবা বুয়েসেলের মাধ্যমে যোগাযোগ করে আপনারা সিঙ্গাপুরে এক্সপ্রেস ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে অবশ্যই আপনাদের মনে রাখতে হবে যে নির্দিষ্ট একটি কাজের উপর অবশ্যই দক্ষতা অর্জন করা জরুরী তারপরে আপনারা সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা আবেদন করতে পারবেন।

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা প্রয়োজনীয়তা

যেহেতু সিঙ্গাপুর ওয়ার্ক পারমিট ভিসার চেয়ে এস পাস  ভিসার গুরুত্ব ও বেতন অনেক বেশি তাই এ ভিসার প্রয়োজন অনেকটাই বেশি। অনেকেই এই ভিসার জন্য আবেদন করে থাকে। তবে সবাই সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা পায় না।

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা পেতে হলে বেশ কিছু নির্দিষ্ট ডকুমেন্টস প্রয়োজন হয়। অনেকেই এগুলো সঠিকভাবে দিতে পারেনা। এছাড়াও পূর্ণ অভিজ্ঞতা ছাড়া সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসায় আবেদন করা যায় না। তাই অনেকের ইচ্ছা থাকলেও সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা পেতে ব্যর্থ হয়।

সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা সতর্কতা

অনেকে মনে করে থাকেন অর্ধ দক্ষ হয়েও সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা তে আবেদন করে ভিসা পাবেন। যেটি একেবারেই ভুল ধারণা। সিঙ্গাপুর সরকার কখনোই অর্থ দক্ষ মানুষকে এ ধরনের ভিসা প্রদান করে না।সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা পেতে হলে অবশ্যই আপনাকে পূর্ণ দক্ষতা অর্জন করতে হবে।

আরো পড়ুনঃ  দুবাই ভিসা চেক করার সহজ নিয়মে ( এক ক্লিকেই )

অনেকে দালাল বা প্রতারক চক্রের মাধ্যমে অর্থ দক্ষতা থাকা সত্ত্বেও বিভিন্ন ধরনের চুক্তি করে থাকে। যদিও সে যুক্তিতে টাকার পরিমাণটা অনেক বেশি হয়। তবে দিন শেষে সিঙ্গাপুর এস পাস ভিসা পেলেও সেখানে গিয়ে বেশ কষ্টকর অবস্থায় পড়তে হয়। তাই এ সকল দালাল ও তরল চক্র থেকে সাবধান থাকতে হবে।

1 Comment

  1. Toriqul islam abir

    ভাই আমি ডিপ্লোমা ইন মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করছি। আমি কি পারবো সিঙ্গাপুর এস পাশে যাইতে। জানালে খুব উপকৃত হব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *