রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা ২০২৩-রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা খরচ

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা
রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা

প্রিয় বন্ধুরা রোমানিয়া দেশটি সম্পর্কে জানার জন্য আপনারা অনেকেই আমাদের কাছে প্রশ্ন করে থাকেন। তাই আজকে আমরা আপনাদের জন্য রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা সম্পর্কে একটি সুনির্দিষ্ট তথ্য নিয়ে হাজির হয়েছি। আপনি যদি রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা সম্পর্কে জানতে চান তাহলে আপনার জন্য অবশ্যই আমাদের এই কনটেন্টটি জরুরী। কারন আমাদের এই কনটেন্টটি যদি আপনি মনোযোগ সহকারে পড়েন তাহলে অবশ্যই রোমানের স্টুডেন্ট ভিসা সম্পর্কে একটি সুনির্দিষ্ট ধারণা পেয়ে যাবেন।

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা ২০২৩

উচ্চশিক্ষায় নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার লক্ষ্যে অনেক মেধাবী শিক্ষার্থীর স্বপ্ন দেখে বিদেশি কোন রাষ্ট্রে গিয়ে লেখাপড়া করার। তাদের জন্য একটি সুন্দর এবং স্বচ্ছ দেশ হলো রোমানিয়া। রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা ২০২৩ সম্পর্কিত বেশ কিছু আপডেট তথ্য এসেছে চাই স্টুডেন্টদের ভিসা পেতে আরো সহায়তা করবে।

যারা ইউরোপের মধ্যে গিয়ে লেখাপড়া করতে চান তাদের জন্য সবথেকে বেশি সুবিধা হচ্ছে রোমানিয়ার স্টুডেন্ট ভিসা সংগ্রহ করা। কারণ সম্প্রীতি রোমানিয়া সেনজেনভুক্ত দেশ হয়ে যাওয়ার কারণে স্টুডেন্টরা বাড়তি কিছু সুবিধা পাবে। সেই সাথে অন্যান্য দেশগুলোতে যেতে হলে যে পরিমাণ টাকা এবং রিকোয়ারমেন্ট গুলো প্রয়োজন তা থেকেও মুক্তি পাওয়া যাবে। সর্বোপরি কম খরচের সহজ ভাবে রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা পাবে শিক্ষার্থীরা।

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা প্রসেসিং

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা প্রসেসিং প্রক্রিয়া বর্তমানে একটু জটিল ধাপ রয়েছে। তবে চিন্তার কোন কারণ নেই আপনার সকল রিকুয়েডমেন্টগুলো যদি সঠিক এবং সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে পারেন তাহলে এজেন্সি আপনাকে খুব দ্রুত রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা প্রদান করতে বাধ্য থাকবে। এক্ষেত্রে প্রথমে আপনাকে রোমানিয়া অবস্থিত যে কোন একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভর্তি ফরম নিয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে।

আরো পড়ুনঃ  অস্ট্রেলিয়া স্টুডেন্ট ভিসা ২০২৩-অস্ট্রেলিয়া স্টুডেন্ট ভিসার খরচ

অনেকেই মনে করে থাকে ভর্তি ফরম না পূরণ করেও স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া যায় কিনা? তাদের ধারণাটি একেবারেই ভুল, কারণ স্টুডেন্ট ভিসা পেতে হলে অবশ্যই আপনাকে একটি বিশ্ববিদ্যালয় সিলেট করে সেখানে ভর্তি ফরম পূরণ করতে হবে। যদি আপনি একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্কলারশিপ পেয়ে যান তাহলে আপনার ভিসা প্রসেসিং অর্ধেক সম্পন্ন হয়ে গেল। এরপর এজেন্সি থেকে বেশি আবেদন ফরমটি পূরণ করলেই খুব দ্রুত ভিসা পেয়ে যাবেন।

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা খরচ

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা খরচ সর্বোচ্চ ৮০ থেকে ১২০ ইউরো। কারণ আপনারা হয়তো অনেকে জেনে থাকবেন যে এই স্টুডেন্ট ভিসা পেতে হলে অবশ্যই স্কলারশিপ পেতে হয়। এবং আপনি যদি স্কলারশিপ পেয়ে রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা নিতে চান সেক্ষেত্রে একেবারেই কম সংখ্যক টাকা খরচ হবে।

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া

রোমানের স্টুডেন্ট ভিসা আবেদন প্রক্রিয়ার প্রথমে আপনাকে রোমানিয়ার যে কোনো একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আবেদন করতে হবে। তবে প্রতিটা সময়ে আপনি ভর্তি আবেদন করতে পারবেন না। রোমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে দুইটি সিজনে ভর্তি কার্যক্রম হয়ে থাকে। সার্কুলার অনুযায়ী সেই সময় গুলোতে ভর্তি আবেদন করতে হয়।

আরো পড়ুনঃ  বাহরাইন যেতে কত বছর বয়স লাগে-বাহরাইন যেতে কত টাকা লাগে

ভর্তি আবেদন করার পর যদি আপনি উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপ পেয়ে যান এরপর আপনাকে রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। আবেদন করার পর কিছুদিন অপেক্ষা করতে হয়। আপনার সমস্ত রিক্রুটমেন্টগুলো যাচাই-বাছাই শেষে আপনাকে একটি চিঠি পাঠানো হবে। এবং চিঠিতেই আপনার রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা সম্পর্কিত সর্বশেষ আপডেট উল্লেখ করা থাকবে।

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

২০২৩ সালে পূর্বে পর্যন্ত রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা পাবার জন্য যে কাগজপত্র গুলোর প্রয়োজন হতো তার কিছুটা পরিবর্তন করা হয়েছে। তবে যে কাগজপত্র গুলো সব থেকে বেশি কমন তার কিছু নমুনা নিচে দেওয়া হল:

  • মেয়াদ সহ একটি পাসপোর্ট থাকতে হবে
  • রোমানিয়া ভিসা আবেদন ফরম
  • পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম
  • আইএলটিএস স্কোর কমপক্ষে ৫.৫ থাকতে হবে
  • নতুন রঙিন পাসপোর্ট সাইজের ছবি থাকতে হবে
  • স্টুডেন্ট এর লিগেল আইডেন্টিটি ডকুমেন্টস থাকতে হবে
  • স্টুডেন্ট নতুন একটি সিভি তৈরি করতে হবে
  • পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট তৈরি করতে হবে
  • কোভিড উনিশ ভ্যাকসিন গ্রহণ করতে হবে

 

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা
                                                    রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা
আরো পড়ুনঃ  অস্ট্রেলিয়াতে কোন কাজের চাহিদা বেশি | অস্ট্রেলিয়া বেতন কত

স্কলারশিপের জন্য রোমানিয়ার ২০ টি বিশ্ববিদ্যালয়

রোমানিয়াতে বাংলাদেশ থেকে স্কলারশিপের মাধ্যমে পড়াশোনা করার জন্য বা উচ্চ শিক্ষার জন্য যেতে পারবেন। যে সকল বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে স্কলারশিপ নিয়ে পড়াশোনা করার জন্য যেতে পারবেন সেই সকল বিশ্ববিদ্যালয় এর তালিকা নিচে টেবিলের মাধ্যমে তুলে ধরা হলো।

স্কলারশিপের জন্য রোমানিয়ার ১০ টি বিশ্ববিদ্যালয়
বুখারেস্ট বিশ্ববিদ্যালয়
ক্রেওভা বিশ্ববিদ্যালয়
স্টেফান সেল মেরে সুসেভা বিশ্ববিদ্যালয়
পশ্চিম বিশ্ববিদ্যালয় টিমিসোয়ারা
বুখারেস্ট অর্থনৈতিক স্টাডিজ বিশ্ববিদ্যালয়
ক্লুজ-ন্যাপোকা কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয়
মেডিসিন ও ফার্মাসি বিশ্ববিদ্যালয়, ক্লুজ-নাপোকা
সিবিউর লুসিয়ান ব্লাগা বিশ্ববিদ্যালয়
পলিটাহনিকা ইউনিভার্সিটি অফ টিমিসোয়ারা

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসার দাম কত

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসার দাম সঠিকভাবে বলা যায় না। স্কলারশিপ এর মাধ্যমে রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা পেতে হলে সর্বোচ্চ ১২০ ইউরো পর্যন্ত খরচ হতে পারে। কারণ রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়ার জন্য আপনাকে স্কলারশিপ পেতে হবে। তবে রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা পাবার জন্য যারা দালাল অথবা প্রতারক চক্র গুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ আট লক্ষ টাকা পর্যন্ত খরচ হয়ে যায়।

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়ার উপায়

রোমানের স্টুডেন্ট ভিসা বর্তমানে পাওয়াটা একটু সহজ ব্যাপার। তবে রোমানিয়া খুব সেনজেনভুক্ত দেশের তালিকায় হয়ে যাওয়ার পরে রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়াটা একটু কঠিন হয়ে যাবে। তবে রোমানের স্টুডেন্ট ভিসা পেতে হলে রোমানিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ওয়েবসাইট থেকে আপডেট রাখতে হবে তারা যখন সার্কুলার দেয় ঠিক সে সার্কুলার অনুযায়ী সঙ্গে সঙ্গে আবেদন করতে হবে।

আরো পড়ুনঃ  আমেরিকা ভিসা পাওয়ার যোগ্যতা-আমেরিকা ভিসা প্রসেসিং

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা ফর বাংলাদেশি

বাংলাদেশীদের জন্য রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়া বর্তমানে একটু সহজ। কারণ বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের জন্য রোমানিয়ার সরকার তাদের বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে অনেক স্কলারশিপের সুযোগ রেখেছেন। তাই আপনি যদি বাংলাদেশী হয়ে থাকেন তাহলে আপনার জন্য রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা পাওয়াটা অনেক সহজ ব্যাপার। তবে এক্ষেত্রে অবশ্য আপনাকে আইএলটিএস কোর্স করতে হবে এবং রোমানিয়ার অবস্থিত একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্কলারশিপ পেতে হবে।

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসায় কাজ করা যায়

প্রিয় বন্ধুরা অনেকেই জানার ইচ্ছা পোষণ করেন যে রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসায় গিয়ে কাজ করা যায় কিনা? যাদের মনে এ ধরনের প্রশ্ন আছে তাদের জেনে রাখা ভালো যে রোমানিয়া গিয়ে আপনি পার্ট টাইম কাজ করতে পারবেন। তবে আপনি যদি মনে করে থাকেন যে রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে সেখানে গিয়ে ফুল টাইম কাজ করবেন তাহলে সেটা সম্ভব না। রোমানিয়া সরকার বিশ্ববিদ্যালয় স্টুডেন্টদের জন্য প্রতি সপ্তাহ নির্দিষ্ট একটি কর্ম ঘন্টা কাজ করার অনুমোদন দিয়েছে।

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসার সুযোগ সুবিধা

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসায় বিশেষ কিছু সুযোগ সুবিধা রয়েছে বাঙ্গালীদের জন্য। কারণ এর আগে রোমানিয়া দেশটিতে লেখাপড়ার জন্য স্টুডেন্টরা যাওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করত না। কিন্তু সম্প্রীতি রোমানিয়া দেশটি ইউরোপের সেনজেনভুক্ত দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হওয়ার কারণে অনেক শিক্ষার্থীর রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা নেওয়ার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করছে। কারো নীরবের এই দেশটিতে ঢোকার মাধ্যমে শ্রেণীর ভুক্ত প্রতিটা দেশে অভিগমন করার সুযোগ পাবে। এটা হলো রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসার সব থেকে বড় সুবিধা।

আরো পড়ুনঃ  দুবাই ভিজিট ভিসা প্রসেসিং খরচ সহ বিস্তারিত

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে সতর্কতা

যেহেতু বর্তমান সময়ের রোমানিয়া নিয়ে একটি সেনজেন ভুক্ত দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়ে গেছে সেহেতু বর্তমান সময়ের রোমানিয়া পাঠানোর জন্য বহু মানুষ আপনাকে উৎসাহিত করবে। এবং তারা একটি অর্থের চুক্তি করতে চাইবে আপনার সঙ্গে। তারা আপনাকে বারবার বোঝানোর চেষ্টা করবে যে রোমানিয়া সেনদের ভুক্ত দেশ হয়ে গেছে এটা অনেক উন্নত দেশ যেখানে যদি আপনি যেতে পারেন তাহলে আপনার জন্য অনেক সুবিধা হবে।

এরকম নানান ধরনের উদ্ভট কথা বলে দেওয়ার জন্য কমপক্ষে ৮ থেকে ১২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত  চুক্তি করবে। কিন্তু পরবর্তীতে দেখা যাবে আপনাকে বেশি সম্পর্কিত কোন ধরনের আপডেট দিচ্ছে না। ঠিক তখনই আপনাকে বুঝে নিতে হবে আপনি একটি প্রতারক চক্রের সঙ্গে হাত করেছেন। তাই যত দ্রুত সম্ভব এ ধরনের মানুষগুলো থেকে বিরত থাকতে হবে। যদি সত্যিই রোমানের স্টুডেন্ট ভিসা পেতে চান তাহলে স্কলারশিপের মাধ্যমে সঠিকভাবে নিরাপদ ভাবে যেতে পারেন।

রোমানিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা ২০২৩-রোমানিয়া ওয়ার্ক পারমিট এজেন্সি

Comments

No comments yet. Why don’t you start the discussion?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *